আজ-  ,

basic-bank

সাপ্তাহিক ইনতিজার রেজি. ন. ডি-এ ১৭ ৬৮ এর একটি ওয়েব সাইট সংষ্করণ


সংবাদ শিরোনাম :

যাচ্ছেন আফিফরা, ফিরছেন সৌম্যরা

বাংলাদেশ ‘এ’ দল রয়েছে শ্রীলঙ্কা সফরে। সেখানে প্রথম চার দিনের ম্যাচে ড্র করে তারা। গতকাল ছিল দ্বিতীয় ম্যাচের দ্বিতীয় দিন। চারদিনের ম্যাচ শেষ হতেই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে ‘এ’ দল। দলের স্কোয়াডেও আসছে বড় পরিবর্তন। ৫ জন ক্রিকেটার ফিরে আসছেন। তারা হলেন, জহুরুল ইসলাম অমি, মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, সাদমান ইসলাম অনিক ও সালাউদ্দিন শাকিল। তাদের পরিবর্তে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যাচ্ছেন আরিফুল হক, আবু হায়দার রনি, আফিফ হোসেন, সাইফ হাসান ও নাঈম ইসলাম।

গতকাল বিষয়টি নিশ্চিত করেন জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। তিনি বলেন, ‘চার দিনের ম্যাচ শেষ হতেই ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে। সেখানে আমাদের নতুন পাঁচ ক্রিকেটার যোগ দিবে। ফিরেও অসবে পাঁচজন।’ ফিরে আসছেন যারা তাদের মধ্যে চারজনই খেলেন জাতীয় দলে। এসেই তারা খেলবেন জাতীয় ক্রিকেট লীগে। এরপরই শুরু হবে ভারত সফরের জন্য ক্যাম্প। 
আগামী ৯, ১০ ও ১২ই অক্টোবর ‘এ’ দল খেলবে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ।  তার জন্য গতকাল আফিফ  হোসেনরা প্রস্তুতি নেন মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে। তারই এক ফাঁকে এই সফর নিয়ে আফিফ বলেন, ‘দুইদিন অনুশীলন ছিল। এর আগেও সবাই যার যার মতো অনুশীলন করেছে। আমরা যে পাঁচজন শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছি, ওরা এই দুইদিন কাজে লাগিয়েছি। যাতে ভালো খেলা যায় ওই চেষ্টা করবো।’ সফরে লক্ষ্য নিয়ে আফিফ বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ওখানে যে তিনটা ম্যাচ আছে সবকটিতেই জিততে পারি। ভালো খেলার চেষ্টা করবো। আর দলের লক্ষ্য হচ্ছে, যেন দলের জন্য ভালো করতে পারি।’ তিনি বলেন, ‘এখানে প্রমাণ করার কিছু নেই। আমি শেষ যেসব এনসিএল বা বিসিএল খেলেছি, ওখানে রান করেছি। প্রতিটি আসরই মোটামুটি ভালো যাচ্ছে। তো এই আসরেও আশা করছি, এসে যেন ভালো করতে পারি।’
অন্যদিকে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে ভারত সফরে গিয়েছিলেন আরেক তরুণ সাইফ হাসান। সেখান থেকে ফিরেছেন খুব বেশি দিন হয়নি। তবে যতটা তার কাছে আশা ছিল সেই লক্ষ্য পূরণ করতে পারেননি। তাই শ্রীলঙ্কা সফরে ঘাটতি পূরণ করতে চান তিনি। সাইফ বলেন, ‘ভারতে ইতিবাচক অনেক দিক ছিল। যদিও আমরা সিরিজ জিততে পারিনি। আমাদের শুরুটা ভালো ছিল। আমরা ওদের ১৮০ রানে অলআউট করেছি। ওখানে আমাদের সুযোগটি নেয়া দরকার ছিল। জেতা ম্যাচ ছিল। ব্যাটসম্যানরা মানিয়ে নিতে পারেনি। আমরা কলাপ্স করে ফেলেছি। পরে কামব্যাক ভালো ছিল। সব মিলিয়ে ব্যাটসম্যানরা তেমন পারফর্ম করতে পারেনি। টপ অর্ডার যদি ক্লিক করতো, তাহলে আরো একটা-দুইটা ম্যাচ বেশি জিততাম। বোলাররা খুব ভালো বোলিং করেছে, আর ফিল্ডিংও বেশ ভালো ছিল। এখন শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছি, সেখানে ফোকাস করা। ম্যাচ বাই ম্যাচ সব গুরুত্বপূর্ণ আমার জন্যে। আসার পর জাতীয় লীগও আমার জন্যে গুরুত্বপূর্ণ হবে। দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে ইনশাল্লাহ খেলবো। সেটাও আমার পরিকল্পনায় আছে।’ 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered By : Intizar24 Developed By : BDiTZone