আজ-  ,

basic-bank

সাপ্তাহিক ইনতিজার রেজি. ন. ডি-এ ১৭ ৬৮ এর একটি ওয়েব সাইট সংষ্করণ


সংবাদ শিরোনাম :

আমার মা আমার আদর্শের প্রতীক-এম.আর মিলন

আমার মা মিসেস মমতাজ রহমান। তিনি শুধু আমার মাই নন, আমার আদর্শের প্রতীক। তিনি আমার প্রেরণা ও শক্তির উৎস। ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ রবিবার তার ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী । এ উপলক্ষে মমতাজ হাবিব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাউথ আফ্রিকার কেপটাউনে ও বাংলাদেশের টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হবে। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে সকাল ৭টায় বাংলাদেশে টাঙ্গাইলের ইছাপুর গোরস্থানে মরহুমের কবর জিয়ারত, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ দোয়া মাহফিল। সকাল ১০ টায় কোরআনখানি, বাদ যোহর মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে দুপুরের খাবারের আয়োজন । বিকাল ৫টায় মমতা হাবিব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মরহুমের স্মরণে আলোচনা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় ইপিআর মদিনাতুল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে।উল্লেখ্য মমতাজ হাবিব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এক যোগে সাউথ আফ্রিকার কেপটাউনে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়াও ঢাকার জুরাইন, টাঙ্গাইলের মালতী পাড়া সহদেবপুরে, বড়বাশালিয়া ও ধনবাড়ীতে অনুরূপ কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনার জন্য আত্মীয় স্বজন ও শুভাকাঙ্খীদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তাঁর পরিবার। ১৩ই নভেম্বর ২০১৫ আমার মা চলে গেছেন না ফেরার দেশে। টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় নিজ বাস ভবনে জানাযা শেষে মায়ের পূর্বের ইচ্ছা অনুযায়ী ঐতিহ্যবাহী ইছাপুর কবরস্থানে তাঁর মরদহ দাফন করা হয়। আমার মা ব্রেন স্ট্রোক করে দীর্ঘদিন জটিল ও কঠিন রোগে ভোগতেছিলেন। রোগাক্রান্ত অবস্থায় ৪৫ বৎসর বয়সে তার স্বামী, দুই ছেলে ও কন্যাসহ আত্মীয় স্বজনকে রেখে না ফেরার দেশে চলে যান। তার স্বামী জনাব মো. হাবিবুর রহমান তিনি বর্তমানে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। তার বড় ছেলে মো. মাছুদুর রহমান (মিলন) বর্তমানে প্রভাষক হিসেবে কর্মরত এছাড়াও দৈনিক জনতার বাংলা পত্রিকাসহ স্থানীয় পত্রিকার সাথেও জড়িত। তার ছোট ছেলে মো. মাহফুজুর রহমান মামুন বর্তমানে সরকারি সা’দত কলেজে ইংরেজি ভাষা সাহিত্যে এম.এ অধ্যয়নরত পাশাপাশি স্থানীয় পত্রিকায় সাংবাদিকতার সাথেও সম্পৃক্ত রয়েছেন। তার কন্যা মাহফুজা আক্তার হ্যাপি বর্তমানে লুৎফর রহমান মতিন মহিলা কলেজে অধ্যয়নরত। আমার মা ছিলেন নির্লোভ, নির্মোহ, নিরহংকার ও পরোপকারী। জীবনভর দিয়েছেন সবসময় উজার করে, নেননি কিছুই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered By : Intizar24 Developed By : BDiTZone